Home আন্তর্জাতিক ইরানে রুশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী পরমাণু চুক্তি নিয়ে আলোচনা করতে
আন্তর্জাতিক - রাজনীতি - জুন ২৪, ২০২২

ইরানে রুশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী পরমাণু চুক্তি নিয়ে আলোচনা করতে

পরমাণু ইস্যুতে পশ্চিমাদের সঙ্গে দীর্ঘদিন ধরে সম্পর্কের টানাপোড়েন চলছে ইরানের। অন্যদিকে ইউক্রেন যুদ্ধ কেন্দ্র করে রাশিয়ার ওপর ব্যাপক নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে পশ্চিমা দেশগুলো।

এমন পরিস্থিতিতে ইরানের সঙ্গে সম্পর্ক জোরদার করতে মনোযোগী হয়েছে রাশিয়া। পরমাণু চুক্তি ও অন্যান্য সহযোগিতা নিয়ে আলোচনা করতে তেহরান সফরে গেছেন রুশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই লাভরভ।

ইরানের রাষ্ট্রীয় টেলিভিশনের বরাত দিয়ে বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে, রুশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই লাভরভ ইরানে পৌঁছেছেন। ধারণা করা হচ্ছে, তেহরানের সঙ্গে ২০১৫ সালের পারমাণবিক চুক্তি পুনরুজ্জীবিত করবেন লাভরভ।

রাশিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ইরানের প্রেসিডেন্ট ইব্রাহিম রাইসির সঙ্গে বৈঠকের সময় লাভরভের উদ্বোধনী বক্তব্যের একটি ভিডিও ক্লিপ অনলাইনে পোস্ট করেছে। সেখানে তিনি বলেন, ‘মস্কো পশ্চিমের আগ্রাসী নীতির সঙ্গে খাপ খাইয়ে নিচ্ছে।’

ইরান ও রাশিয়া উভয় দেশই পশ্চিমা নিষেধাজ্ঞায় রয়েছে। দেশ দুটির কাছে বিশ্বের বৃহত্তম তেল ও গ্যাসের মজুত রয়েছে। মস্কো গত মাসে বলেছিল, তারা (ইরান ও রাশিয়া) তেল ও গ্যাস বিনিময়ের পাশাপাশি একটি ‘লজিস্টিক হাব’ প্রতিষ্ঠার বিষয়ে আলোচনা করেছে।

২০১৮ সালে ওয়াশিংটন তেহরানের সঙ্গে পারমাণবিক চুক্তি থেকে সরে গেছে। পাশাপাশি ইরানের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে। এর পর থেকে ইরান তার অর্থনীতিকে চাঙ্গা করতে লড়াই করছে।

ইরানের রাষ্ট্রীয় গণমাধ্যম জানিয়েছে, সফরকালে লাভরভ ২০১৫ সালের পরমাণু চুক্তি, জ্বালানি বিষয়ে সহযোগিতা বৃদ্ধি, আন্তর্জাতিক ও আঞ্চলিক সহযোগিতা বাড়ানো ইত্যাদি বিষয় নিয়ে ইরানের রাষ্ট্রনেতাদের সঙ্গে আলোচনা করবেন।

ইতোমধ্যে প্রেসিডেন্ট রাইসির সঙ্গে সাক্ষাৎ করেছেন লাভরভ। তবে সাক্ষাতের বিস্তারিত কিছু জানায়নি ইরানের রাষ্ট্রীয় গণমাধ্যম।

ইরানের রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থা আইআরএনএ জানিয়েছে, বৃহস্পতিবার লাভরভ ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী হোসেইন আমির আবদুল্লাহিয়ানের সঙ্গেও দেখা করবেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Check Also

প্রাইভেটকারে গার্ডার শাস্তিমূলক ব্যবস্থায় কোনো আপত্তি থাকবে না: চীনের রাষ্ট্রদূত

নিজস্ব প্রতিবেদক: রাজধানীর উত্তরায় নির্মাণাধীন বাস র‍্যাপিড ট্রানজিট (বিআরটি) প্রকল্পের ক্…