Home খেলার খবর তীরে এসে তরী ডুবালেন মুশফিকরা…
খেলার খবর - জুলাই ২৬, ২০১৮

তীরে এসে তরী ডুবালেন মুশফিকরা…

গায়ানায় শেষ মুহূর্তের ব্যর্থতায় সিরিজ নিশ্চিত হলো না বাংলাদেশের। তিন ম্যাচ সিরিজের দ্বিতীয়টিতে ৩ রানের নাটকীয় জয়ে সিরিজে ১-১ ব্যবধানে সমতা ফেরাল ওয়েস্ট ইন্ডিজ। বুধবার রাতে শুরুতে ব্যাট করা ওয়েস্ট ইন্ডিজের দেয়া ২৭২ রানের লক্ষ্যে খেলতে নামা বাংলাদেশে থেমেছে পাঁচ উইকেটে ২৬৮ রান করে।

তামিম, সাকিব ও মুশফিকের সম্মিলিত ব্যাটিং পারফরমেন্সে বাংলাদেশ তখন প্রায় জয়ের প্রহরই গুনছিল। হঠাৎ করেই শেষ দুই ওভারে দৃশ্যপট বদলে যায়। ৪৯তম ওভারের শেষ বলে সাব্বির রহমানের আউটের মধ্য দিয়ে শুরু হয় ব্যর্থতা।

এরপরও শেষ ওভারে বাংলাদেশের প্রয়োজন ছিল ৮ রানের। যা খুব কঠিন লক্ষ্য ছিল না। কিন্তু জেসন হোল্ডার সেই ওভারে অত্যন্ত নিয়ন্ত্রিত বোলিং করে কাজের কাজ করে ফেলেন। প্রথম বলেই মুশফিককে আউট করে চাপে ফেলে দেন বাংলাদেশকে। ফুল টস বল মারতে গিয়ে মিড উইকেটে ক্যাচ তুলে দেন মুশফিক। অথচ শেষ ওভারে তার ওপরই ছিল মূল দায়িত্ব।

মুশফিককে ফিরিয়ে দিয়ে মোসাদ্দেকের কাছ থেকে পরপর দুটি ডট বল আদায় করে নেন হোল্ডার। এরপরই বলা যায় ম্যাচ পুরোপুরি হাতছাড়া হয়ে যায় বাংলাদেশের। শেষ তিন বলে মোসাদ্দেক ও মুশফিক চার রান করলেও ব্যবধান কমানো ছাড়া কিছু করতে পারেননি।

বাংলাদেশের ব্যাটসম্যানদের মধ্যে মুশফিক সর্বোচ্চ ৬৮, সাকিব ৫৬ ও তামিম করেন ৫৪ রান। এছাড়া মাহমুদউল্লাহ ৩৯ ও এনামুল হক বিজয় করেন ২৩ রান।

এর আগে টস হেরে ব্যাটিংয়ে নামা ৪৯.৩ ওভারে ২৭১ রান করে অলআউট হয়। শিমরন হেটমায়ের ১২৫ রানের দুর্দান্ত ইনিংস খেলেন। ৯৩ বল থেকে তিনটি চার ও সাতটি ছক্কার মারে এ রান করেন তিনি।

ক্যারিবীয়দের শুরুটা খুব ভালো হয়নি। ২৯ রানে এভিন লুইসের ফেরার পর নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারায় তারা। ১০২ রানের মধ্যে ক্রিস গেইল, শাই হোপ ও জেসন মোহাম্মেদের উইকেট হারায়। পঞ্চম উইকেটে রোভম্যান পাওয়েল ও হেটমায়ের ১০৩ রানের জুটি গড়ে জয়ের ভিত তৈরি করেন।

ক্যারিবীয়দের পক্ষে পাওয়েল ৪৪ এবং ক্রিস গেইল করেন ২৯ রান। বাংলাদেশের বোলারদের মধ্যে রুবেল হোসেন তিনটি এবং সাকিব ও মুস্তাফিজ নেন দুটি করে উইকেট।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Check Also

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে অনিয়ম দূর করুন

‘বলপ্রয়োগ’ সমস্যা সমাধানের উত্তম পন্থা নয়। তাতে বরং পরিস্থিতি আরো ঘোলাটে হয়, সঙ্কট আরো বাড়…