Home আইন-আদালত থমকে আছে নারী ও শিশু নির্যাতন মামলা, নেই বিচারক
আইন-আদালত - মার্চ ৮, ২০২১

থমকে আছে নারী ও শিশু নির্যাতন মামলা, নেই বিচারক

চট্টগ্রাম প্রতিনিধিঃ

চট্টগ্রাম: চট্টগ্রাম নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-৩ এ একবছর ধরে বিচারকের পদ শূন্য। এরইমধ্যে এই ট্রাইব্যুনালে জমে গেছে দুই হাজারের বেশি মামলা।

বর্তমানে ভারপ্রাপ্ত বিচারক দিয়ে চলছে এই আদালতের বিচার কার্যক্রম। দ্রুততম সময়ের মধ্যে চট্টগ্রাম নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-৩ এ বিচারক নিয়োগ দেওয়ার দাবি জানিয়েছেন আইনজীবী ও বিচারপ্রার্থীরা।

আদালত সূত্র জানায়, চট্টগ্রাম নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-৩ এ সন্দ্বীপ, রাউজান, রাঙ্গুনীয়া ও পটিয়া উপজেলার নারী ও শিশু নির্যাতনের মামলাগুলোর বিচার হয়ে থাকে। চট্টগ্রাম নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-৫ এর বিচারক হাবিবুর রহমান এই আদালতে অতিরিক্ত দায়িত্ব পালন করছেন।

সরেজমিন দেখা গেছে, চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট ভবনের ৬ষ্ঠ তলায় অবস্থিত চট্টগ্রাম নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-৩ আদালতের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা অলস সময় পার করছেন। বিচারক না থাকায় মামলার শুনানিও হচ্ছে না। ফলে আইনজীবী ও বিচারপ্রার্থীদের ভিড় নেই ওই আদালতে।

কথা হয় নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক বিচারপ্রার্থীর সঙ্গে। তিনি বলেন, মেয়েকে সঙ্গে নিয়ে গত এক বছর ধরে আদালতে প্রতিনিয়ত আসা-যাওয়া করছি। বিচারক না থাকায় বিচার প্রক্রিয়াও এগোচ্ছে না।

চট্টগ্রাম নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-৩ এর সহকারী পাবলিক প্রসিকিউটর (এপিপি) নজরুল ইসলাম সিন্টু বাংলার ডাককে বলেন, গত বছরের ৫ মার্চ চট্টগ্রাম নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-৩ এর বিচারক জান্নাতুল ফেরদৌস বদলি হন। সেই থেকে এখন পর্যন্ত আর কোনও বিচারককে পদায়ন করা হয়নি।

তিনি বলেন, ইতোমধ্যে এই আদালতে প্রায় দুই হাজার একশ মামলা জমা হয়েছে। এখানে নারী ও শিশু নির্যাতন মামলার বিশাল জট তৈরি হয়েছে। বিচারপ্রার্থীরা এখন বিপত্তিতে পড়েছেন। এই আদালতে বিচারক নিয়োগ জরুরি হয়ে পড়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Check Also

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে অনিয়ম দূর করুন

‘বলপ্রয়োগ’ সমস্যা সমাধানের উত্তম পন্থা নয়। তাতে বরং পরিস্থিতি আরো ঘোলাটে হয়, সঙ্কট আরো বাড়…