Home আন্তর্জাতিক পরাজয় মেনে নেয়া নিয়ে ট্রাম্পের গৃহবিবাদ
আন্তর্জাতিক - নভেম্বর ৯, ২০২০

পরাজয় মেনে নেয়া নিয়ে ট্রাম্পের গৃহবিবাদ

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ নির্বাচনের ফলাফল নিয়ে ট্রাম্প পরিবার বিভক্ত। ফার্স্টলেডি মেলানিয়া ও জামাতা জ্যারেড কুশনার প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পকে বলছেন ফলাফল মেনে নিতে। কিন্তু প্রবল বাধা সৃষ্টি করেছেন ছেলে ডোনাল্ড জুনিয়র ও এরিক। কিছু রিপাবলিকান নেতা ও আইনজীবীরা ট্রাম্পকে নির্বাচনের রায়ের বিরুদ্ধে আইনী লড়াই চালিয়ে যেতে বলছেন। খবর সিএনএনের।
সিএনএনকে ট্রাম্পের পরিবারের অন্তত দুটি সূত্র নিশ্চিত করেছেন প্রবল দোটানায় পড়েছেন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প। শ্যাম রাখি না কুল রাখি অবস্থা ট্রাম্পের। আরেকটি সূত্র বলছে একান্তে ট্রাম্পকে কুশনার বলেছেন সময় এসেছে নির্বাচনের ফলাফল ও ক্ষতি মেনে নেয়ার।

ফার্স্ট লেডি মেলানিয়া ব্যক্তিগত আলোচনায় ট্রাম্পকে পরাজয় মেনে নেওয়ার বিষয়টি বুঝিয়েছেন। তিনি বলেছেন, ট্রাম্পের জন্য নির্বাচনে পরাজয় মেনে নেওয়ার সময় এসে গেছে। নির্বাচনের শুরু থেকে ট্রাম্পের ছেলে ডোনাল্ড জুনিয়র, এরিক রিপাবলিকান নেতাদের প্রতি কট্টর মনোভাব অব্যাহত রেখে প্রেসিডেন্টের ওপর চাপ সৃষ্টির কথা বলে আসছেন। এখনো তাদের অবস্থানে কোনো পরিবর্তন নেই। ট্রাম্প এদের পাল্লায় পড়েই আদালতে লড়াই অব্যাহত রেখেছেন।

শনিবার যখন নির্বাচনের ফল ঘোষণা করা হয়, তখন ভার্জিনিয়ায় গলফ খেলতে গিয়েছিলেন ট্রাম্প। সিএনএন বলছে, ব্যক্তিগতভাবে ট্রাম্প নির্বাচনের ফলাফল প্রত্যাখ্যান করেননি, যতটা তিনি সরাসরি প্রত্যাখ্যান করে আসছেন। তবে তিনি তাঁর আইনজীবীদের আইনি চ্যালেঞ্জ জানিয়ে ফলাফল দেরি করাতে চাইছেন। তিনি নির্বাচনের ফল মেনে নেওয়ার কোনো লক্ষণ দেখাননি।

সাবেক হাউস স্পিকার নিউট গিনগ্রিচ, ন্যাশনাল ইন্টেলিজেন্সের পরিচালক রিচার্ড গ্রিনেল ট্রাম্পকে ম্যাসেজ পাঠান মৃত মানুষের ভোট যাচ্ছে বাইডেনের বাক্সে। ভোট গণনার ক্ষেত্রে দুর্নীতির আশ্রয় নেয়া হচ্ছে। এসব অভিযোগের কোনো সত্যতা মেলেনি। কিন্তু রিপাবলিকান নেতাদের এসব ম্যাসেজ পেয়ে ট্রাম্প বলছেন মার্কিন নাগরিকদের যথাযথ ভোট গ্রহণ না হওয়া পর্যন্ত আমি বিশ্রাম নেব না এবং এটি গণতন্ত্রের দাবি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Check Also

জেরুসালেমে ফিলিস্তিনির বাড়ি গুড়িয়ে দিলো ইসরাইল

অধিকৃত ফিলিস্তিনি ভূখণ্ড পূর্ব জেরুসালেমে এক ফিলিস্তিনি পরিবারের বাড়ি গুড়িয়ে দিয়েছে ইসরাইল…