Home অর্থ ও বাণিজ্য বিপুল অংকের লভ্যাংশের সন্ধানে বিএসইসি
অর্থ ও বাণিজ্য - নভেম্বর ২৬, ২০২০

বিপুল অংকের লভ্যাংশের সন্ধানে বিএসইসি

নিউজ ডেস্কঃ পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত কোম্পানিগুলোর অবণ্টিত ও দাবিহীন হাজার হাজার কোটি টাকা লভ্যাংশের সন্ধানে নেমেছে বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি)।

হিসাব-নিকাশ চূড়ান্ত হওয়ার পর এই অর্থ বিনিয়োগকারী ও পুঁজিবাজারের সুরক্ষায় কীভাবে কাজে লাগানো যায়, সেই পরিকল্পনাও করছেন বলে বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে জানিয়েছেন নিয়ন্ত্রক সংস্থার সংশ্লিষ্টরা।

বিএসইসির নির্বাহী পরিচালক (চলতি দায়িত্ব) ও মুখপাত্র মোহাম্মদ রেজাউল করিম বলেন, অবণ্টিত ও দাবিহীন লভ্যাংশের (নগদ ও স্টক) পরিমাণ কত, আমরা সেটা বিভিন্ন উৎস থেকে জানার চেষ্টা করছি।

সংশ্লিষ্ট একজন কর্মকর্তা জানান, বিএসইসি থেকে ইতোমধ্যে প্রায় ৪০০ নিবন্ধিত কোম্পানি ও মিউচুয়াল ফান্ডকে চিঠি দেওয়া হয়েছে। তথ্য চাওয়া হয়েছে স্টক এক্সচেঞ্জগুলোর কাছেও।

সেন্ট্রাল ডিপোজিটরি বাংলাদেশ লিমিটেড (সিডিবিএল) থেকে বিএসইসি’র প্রাপ্ত তথ্যমতে, তাতে দেখা যাচ্ছে প্রায় ১৭ হাজার কোটি টাকার নগদ ও স্টক লভ্যাংশ অবণ্টিত ও দাবিহীন অবস্থায় কোম্পানিগুলোর কাছে রয়ে গেছে। এর মধ্যে তিন হাজার কোটি টাকা নগদ লভ্যাংশ, বাকিটা স্টক লভ্যাংশ।

ওই কর্মকর্তা বলেন, সিডিবিএল চলতি বছরের ২৫ অক্টোবর পর্যন্ত তথ্য দিয়েছে। হালনাগাদে তাতে হেরফের হতে পারে। চারশ কোম্পানির মধ্যে আড়াইশর হিসাব এসেছে। সব কোম্পানি ও স্টক এক্সচেঞ্জের কাছ থেকে তথ্য আসার পর চূড়ান্ত হিসাব হবে।

নিয়ন্ত্রক সংস্থার একজন ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা বলেন, আমরা প্রথমে হিসাবটা করতে চাচ্ছি যে, কত লভ্যাংশ অবণ্টিত ও দাবিহীন অবস্থায় আছে। কোনো দাবিদার না থাকলে হিসাব চূড়ান্ত করার পর ওই অর্থ বিনিয়োগকারী ও বাজারের সুরক্ষার কাজে লাগানোর চিন্তা-ভাবনা আমাদের রয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Check Also

বাজেট অধিবেশন বসছে ৫ জুন

একাদশ জাতীয় সংসদের অষ্টাদশ অধিবেশন আগামী ৫ জুন শুরু হবে। ওই দিন বিকাল ৫টায় অধিবেশন শুরু হব…