Home পর্যটন মনোরম দৃশ্যমাখা রায়পুরের মিনি কক্সবাজার
পর্যটন - নভেম্বর ২২, ২০২০

মনোরম দৃশ্যমাখা রায়পুরের মিনি কক্সবাজার

লক্ষ্মীপুর জেলা প্রতিনিধিঃ ক্লান্তি, অলস সময় ও নাগরিক কর্মব্যস্ত জীবনে হাঁপিয়ে অনেকেই প্রশান্তির ছোঁয়া খোঁজেন। তাই ছুটিতে প্রকৃতির সান্নিধ্য পেলে মন্দ হয় না। লক্ষ্মীপুরের রায়পুর উপজেলার উত্তর চরবংশী ইউনিয়নের প্রত্যন্ত এলাকায় মনোরম দৃশ্যমাখা গ্রামীণ পরিবেশ প্রাকৃতিকভাবে গড়ে উঠেছে আলতাফ মাষ্টারের ঘাট এলাকায় মিনি কক্সবাজার।

এখানে প্রকৃতিপ্রেমী ও ভ্রমণ পিপাসুদের আনাগোনা থাকে প্রায় সময়। আর হাতের কাছে এমন সুন্দর, নয়নাভিরাম প্রাকৃতিক সৌন্দর্য দেখতে রাজধানীসহ দেশের সব শ্রেণি-পেশার মানুষের কাছে এখন জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে মিনি কক্সবাজার মেঘনা নদীর কোল ঘেঁষা প্রাকৃতিক সৌন্দর্যে ভরপুর নিরিবিলি এই স্থানে যে কারো মন ভালো হয়ে যাবে। নদীর কল কল ধ্বনি কানে আসলে কি যে ভালো লাগে তা না গেলে বুঝা যাবে না।

এখানে আসার উত্তম সময়ই হলো শীতকাল কেন না অন্য মৌসুমে এলাকার পরিবেশ ভালো থাকে না। দর্শনার্থীদের জন্য প্রবেশ মূল্য বিহীন প্রাকৃতিক মনোরম দৃশ্যমাখা গ্রামীণ পরিবেশে আপনি বনভোজনের স্থান হিসেবেও নির্বাচন করতে পারেন।

আলতাফ মাষ্টারের মাছঘাটে রায়পুরে মেঘনা নদীর পাড়ের ব্লক গুলোতে বসে আপন মনে ভাবতে পারেন প্রিয় জনের কথা, দেখতে পারেন সূর্যাস্তের মত অপরূপ দৃশ্য, পাশে বিশাল আকৃতির খোলা জায়গা।

নদীতে ভ্রমণ করার মত নৌকার ব্যবস্থা সব সময় না থাকলেও ওখানে থাকা নৌকার মালিকদের সাথে আলাপ করে তা ব্যবস্থা করা সম্ভব। থাকার মত আবাসিক হোটেল হয়তো নেই এখানে কিন্তু টিম নিয়ে আসলে খোলা আকাশের নিচে তাম্বু দিয়ে থাকার জায়গার অভাব হবে না।

বনভোজনের জন্য সুন্দর স্থান এটি, একসাথে কয়েক হাজার লোক এখানে ভ্রমণ করতে পারবে। এখানে আশেপাশে ভালো মানের ৩/৪ টি খাওয়ার হোটেল ও চাইনিজ রেস্টুরেন্ট আছে সেহেতু আসার সময় আর্থিক প্রস্তুতি নিয়ে আসতে হবে।

আলতাফ মাষ্টারের মাছঘাট ও মিনি কক্সবাজার যেভাবে যাবেন: নিজস্ব পরিবহন বা যাত্রীবাহী সিএনজি করে রায়পুর হয়ে হায়দারগঞ্জে, পাটোয়ারি রাস্তা, বাসাবাড়ি বাজার নামতে হবে। এখান থেকে আঞ্চলিক সড়কে চরইন্দুরিয়া মেঘনাবাজার এলাকায় দিয়ে ২কি.মি সোজা গাড়ি চালিয়ে নতুন সলিং সড়কে দিয়েও ওই স্থানে যাওয়া যায়।

সরকারি অথবা বেসরকারি সঠিক উদ্যোগে মিনি কক্সবাজার হয়ে যেতে পারে একটি পর্যটন কেন্দ্র। লক্ষ্মীপুর ও নোয়াখালী অঞ্চলে সরকারি অথবা বেসরকারি কোন রিসোর্ট নেই তাই আলতাফ মাষ্টারের মাছঘাট মেঘনার অববাহিকা মিনি কক্সবাজার এই স্থানটিকে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ একটু সুদৃষ্টি দিলে এ অঞ্চলের উপকূলের বঞ্চিত মানুষগুলো কিছু সুবিধা পাবে।

প্রকৃতিকে খুব কাছ থেকে উপভোগ করতে চাইলে লক্ষ্মীপুরের রায়পুরের আলতাফ মাষ্টারের নতুন মাছঘাট চলে আসতে পারেন। ঘাটস্থ মেঘনার পাড় যেকোনো বিশেষ দিনে এই দুই স্থানে ব্যাপক মানুষের সমাগম হয়ে থাকে। বিভিন্ন অঞ্চল থেকে বেড়াতে আসে ভ্রমণ পিপাসু লোকজন। চরইন্দুরিয়া সংলগ্ন মেঘনা নদীর মেঘনার পাড় এলাকাটি পর্যটন কেন্দ্র হিসাবে সম্ভাবনার কথা বলে।

উপকূলীয় অঞ্চলের অপরূপ প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের লীলাভূমিকে সরকারি অথবা বেসরকারিভাবে সঠিক পরিকল্পনা নিয়ে কাজ করলে হয়ে যেতে পারে নিদারুণ রিসোর্ট। উপকূলের প্রাকৃতিক নিদর্শন রিসোর্টে রূপদান করার প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য মেঘনার পাড়ের অবহেলিত লোকজন ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সুদৃষ্টি কামনা করে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Check Also

আফগানিস্তানে ভূমিকম্পে নিহত ২৬

আফগানিস্তান ভূমিকম্পে কেঁপে উঠেছে। রিখটার স্কেলে কম্পনের মাত্রা ছিল ৫ দশমিক ৩। সোমবার (১৭ …