Home লাইফ স্টাইল হারিয়ে যাচ্ছে শীতল পাটি
লাইফ স্টাইল - নভেম্বর ২৬, ২০২০

হারিয়ে যাচ্ছে শীতল পাটি

রাসেল মাহমুদ অনন্ত ঃ শীতল পাটি কুঁটির শিল্পের গণ্ডি পেরিয়ে হয়েছে জাতিসংঘের স্বীকৃৃতিপ্রাপ্ত পণ্য। দেশের সাংস্কৃতিক ঐতিহ্যের তকমা পাওয়া এ উপকরণটি কালের বিবর্তনে ফরিদপুর থেকে ক্রমশই হারিয়ে যেতে বসেছে। দীর্ঘদিন ধরে কাঁচামাল ও পুঁজি সংকটে এতোদিন কোনোমতে চললেও করোনার ছোবলে পড়েছে অস্তিত্ব সংকটে।

তবে স্থানীয় প্রশাসন বলছে, শিল্পটিকে বাঁচাতে চেষ্টা চলছে।

কারিগররা জানান, কাঁচামাল সংকট ও মূলধনের অভাব রয়েছে। পাশাপাশি কাঙ্ক্ষিত দাম না পাওয়া ও প্লাস্টিক পণ্যের সঙ্গে পেরে না ওঠায় অনেকেই এ পেশা ছেড়েছেন। করোনাকালে উৎপাদিত পণ্য অবিক্রিত থাকায় দেখা দিয়েছে অর্থনৈতিক সংকটও।

এ শিল্পকে এগিয়ে নিতে সরকারকে ব্যাপক কার্যক্রম হাতে নেয়ার কথা জানালেন এ শিল্পের সাথে যুক্ত কয়েকজন ব্যক্তি।

ইউনেস্কোর বিশ্ব ঐতিহ্যের তালিকায় জায়গা পেয়েছে শীতল পাটি। শীতল পাটি এখন বিশ্ব ঐতিহ্যের অংশ। জাতিসংঘের অঙ্গসংস্থা ইউনেস্কো বাংলাদেশ সরকারের সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের আবেদনক্রমে ৬ ডিসেম্বর, ২০১৭ খ্রিস্টাব্দে বাংলাদেশের শীতল পাটি বুননের ঐতিহ্যগত হস্তশিল্পকে বিশ্বের ইনট্যানজিবল সাংস্কৃতিক ঐতিহ্যের তালিকায় অন্তর্ভুক্ত করে।

সংস্কৃতি মন্ত্রণালয়ের পে বাংলাদেশ জাতীয় জাদুঘর এ প্রস্তাবটি প্রণয়ন করেছিল ২০১৬ সালের সেপ্টেম্বরে। বাংলাদেশ সরকারের পে সংস্কৃতিবিষয়ক মন্ত্রণালয় ইউনেসকোর কাছে প্রস্তাবটি দাখিল করেছিল। স্বীকৃতিদানের মূল কাজটি করে ইন্টারগভর্নমেন্টাল কমিটি ফর দ্য সেফগার্ডিং অব দ্য ইনট্যানজিবল কালচারাল হেরিটেজ।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Check Also

সুইডেন-ফিনল্যান্ডের ন্যাটোর সদস্য হতে আবেদন

যুক্তরাষ্ট্রের নেতৃত্বাধীন সামরিক জোট ন্যাটোর সদস্যপদের জন্য আনুষ্ঠানিকভাবে আবেদন করেছে রা…